| |

Ad

শেহজাদকে নিষিদ্ধ হতে হলো এক বছরের জন্য

আপডেটঃ 7:32 pm | August 19, 2019

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নীতিমালা ভঙ্গ করায় এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন আফগান ওপেনার ও উইকেট রক্ষক মোহাম্মদ শেহজাদ। বিশ্বকাপের মাঝপথ থেকেই শেহজাদকে নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয় বোর্ডের।

সেই সূত্র ধরে বিশ্বকাপ চলাকালীন দেশে ফিরিয়ে নেয় আফগান ক্রিকেট বোর্ড। কারণ হিসেবে দেখানো হয়, তার হাঁটুর চোট। যদিও এই চোটের খবর অস্বীকার করেন শেহজাদ।বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার পর এক ভিডিওতে শেহজাদ বলেন, তিনি কোনও চোট পাননি। খেলতে তার কোনও সমস্যা নেই। তবু তাকে জোর করে দেশে ফিরিয়ে নেয়া হয়। কান্নাকাটি করেও যখন দলে ফিরতে পারেননি তখন শেহজাদ হুমকিও দেন ক্রিকেট ছাড়ার। তাতে কাজের কাজ তো কিছুই হয়নি, উল্টো নিষিদ্ধ হতে হলো। সঙ্গে বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিটাও বাতিল হলো।শেহজাদকে নিষিদ্ধ করা ও চুক্তি বাতিল প্রসঙ্গে বোর্ড কারণ দেখায়, বোর্ডের অনুমতি ছাড়াই দেশের বাইরে যাওয়া। একাধিক বোর্ড মিটিংয়ে অংশগ্রহণ না করা। এছাড়া পাকিস্তানের পেশোয়ারেও অনুশীলন করায় চটেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

শেহজাদের বারবার পাকিস্তান যাওয়ার কারণ, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানের পাশেই পেশোয়ারে শৈশব কাটে শেহজাদের। এখানেই ক্রিকেট শেখা। এখানেই তার বেড়ে ওঠা। বিয়েও করেছেন পেশোয়ারে।বোর্ড তাকে পেশোয়ার ছেড়ে আফগানিস্তানে থিতু হতে বললেও এড়িয়ে গেছেন বারবার। তাই শেষমেশ নিষিদ্ধ করতে বাধ্য হন। এক বছরের এই নিষেধাজ্ঞার কারণে খেলতে পারবেন না সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচটিও। এছাড়া ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজেও খেলা হবে না শেহজাদের।